প্রচ্ছদ / আঞ্চলিক / কাউনিয়ায় বন্যায় ভাঙ্গছে ব্রীজ, দুর্ভোগে ৯ গ্রামের ২০হাজার মানুষ

কাউনিয়ায় বন্যায় ভাঙ্গছে ব্রীজ, দুর্ভোগে ৯ গ্রামের ২০হাজার মানুষ

কাউনিয়া থেকে ফিরে রবিউল ইসলাম দুখু: রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার গোপিডাঙ্গায় ছোট তিস্তা নদীর ওপর নির্মিত ব্রীজটি গত বছর বন্যার স্রোতে ভেঙ্গে যায়। ব্রীজটি আজও সংস্কার হয়নি। এই ব্রীজ সংস্কার না হওয়ার কারনে দুই উপজেলার ৯গ্রামের শিক্ষার্থীসহ ২০হাজার মানুষ দুর্ভোগে পড়েছেন। দুর্ভোগে পড়া গ্রাম গুলো হল- রংপুর জেলার কাউনিয়া উপজেলার গোপিডাঙ্গা, মৌলভি বাজার, আরাজি হরিশ্বর, প্রাণনাথচর, ব্রেন্টের বাজার, বুদ্ধির বাজার, এবং লালমনিরহাট জেলার ঠিকানার চর, চাংরার চর ও একতা বাজার।
কয়েক যুগ ধরে বালাপাড়া ইউনিয়নের মৌলভীবাজারের পাশে ছোট তিস্তা নদীর ওপর বাঁশের সাঁকো ছিল। ৯গ্রামের মানুষ জীবনের যাতায়াত করতো। তাদের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থাীয় কমিটির সভাপতি রংপুর ৪ সংসদ সদস্য টিপু মুন্সি সেখানে একটি স্থায়ী ব্রীজ নির্মাণ করেন। স্থায়ী ব্রীজ নিমাণ করার পর এসব মানুষের দুর্ভোগ দূর হয়। হাজারো কৃষক পাওয়া শুরু করেন পণ্যের ন্যায্য মূল্য। গত বছর বন্যার স্রোতে সেই ব্রীজের একাংশ (উত্তরে) ভেঙ্গে যায়। এখন তাদের দুর্ভোগের শেষ নেই। প্রায় ৫মাস অতিবাহিত হলেও আজও সেখানে ব্রীজটি সংস্কার হয় নি। গোপিডাঙ্গাচরের ব্যবসায়ী বাদশা মিয়া জানান, কাউনিয়ার ৭গ্রামের মানুষ। বীজ্রটি ভাঙ্গা থাকায় মানুষের কষ্টের শেষ নেই।

কৃষক আফাজ্জল হোসেন বলেন, গোপিডাঙ্গাচরসহ আশ পাশের চরের শত শত হেক্টর জমিতে মরিচ আবাদ হয়েছে। মরিচে মানুষের মুখে হাসি ফুটেছে। যখন এই মরিচ নিয়ে ব্রীজের পারে আসেন তখন তাদের মুখে হাসি থাকে না।

লালমনিরহাটের ঠিকানার চরের ঘোড়ারগাড়ি গাড়িচালক রোজন আহমেদ বলেন, কয়েকটি চরে শত শত ঘোড়ার গাড়ি রয়েছে। এই পেশায় তারা জীবিকা নির্বাহ করছেন। ব্রীজ ভাঙ্গার কারনে তাদের আয় কমে আসছে।

স্থানীয়রা জানান, এসব চরের হাজারো শিক্ষার্থী কাউনিয়া কলেজ, কাউনিয়া মহিলা কলেজ, কাউনিয়া মোফাজ্জল হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়সহ অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখা পড়া করছে। যাতাযাতে শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ বেড়েছে।

স্কুল ছাত্র শরীফ কায়সার বলেন, কখনও নৌকায় পারাপার হন আবার কখনও লঙ্গি পড়ে নদী পার হয়ে তীরে প্যান্ট পড়ে স্কুলে যাওয়া যান।
কাউনিয়া মোফাজ্জল হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক জাকির হোসেন বলেন, দ্রুত বীজটি সংস্কার করলে ছাত্রছাত্রীদের কষ্ট দূর হবে।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক জানান, কয়েক গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ দূর করতেই সংসদ সদস্য টিপু মুন্সি ব্রীজটি নির্মাণ করে দেন। বন্যায় ভেঙ্গে যাওয়া ব্রীজটি দ্রুত সংস্কার হবে ।
সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম ব্রীজ সংস্কারের দাবী জানিয়ে বলেন, মানুষগুলো কত কষ্টে আছেন ব্রীজের পারে গেলেই বোঝা যাবে।
অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনছার আলী ব্রীজটি পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেন, সংস্কার কাজ শুরু হবে দ্রুত সময়ের মধ্যে ।
কাউনিয়া উপজেলার স্থানীয় সরকার অধিদপ্তর এলজিইডি কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গোপিডাঙ্গা এলাকার ছোট তিস্তার নদীর ওপর ভাঙ্গা ব্রজীটির সংস্কার কাজ দ্রুত সময়ের মধ্যে শুরু হবে।

About Online Desk

The Daily Rangpur Chitra is the highest circulated regional daily newspaper of Rangpur Division, Bangladesh

Check Also

রংপুরে শীতে কাবু আলু চাষির স্বপ্ন

রণজিৎ দাস: রংপুর সহ সারা দেশে কয়েকদিন থেকে চলছে কখনও ঘন কুয়াশা, কখনও আবার শৈত্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *