প্রচ্ছদ / আঞ্চলিক / রংপুরে শীতে কাবু আলু চাষির স্বপ্ন

রংপুরে শীতে কাবু আলু চাষির স্বপ্ন

রণজিৎ দাস: রংপুর সহ সারা দেশে কয়েকদিন থেকে চলছে কখনও ঘন কুয়াশা, কখনও আবার শৈত্য প্রবাহ আবার কখনও শিরশিরি বাতাস। এতে করে জনজীবন হয়ে পড়েছে স্থবির, বিশেষ করে বড় সমস্যায় পরেছে এ অঞ্চলের আলু চাষীরা। একসময় এ অঞ্চল তামাক চাষে বিখ্যাত ছিল কিন্তু সময়ের সাথে সাথে কৃষি দপ্তরের সঠিক দিক নির্দেশনা ও পরামর্শে এখন এ অঞ্চল সারা দেশে আলু চাষে বিখ্যাত।
গতবছর এ অঞ্চলের কৃষক আলু চাষে লোকশানে পড়লেও তা কাটিয়ে উঠতে নতুন আশা নিয়ে এ বছর নতুন করে লাভের আশায় শুরু করেছে আলুর আবাদ। সুলভ মূল্যে সার কীটনাশক হাতের নাগালে পাওয়ায় এবং মাঠ পর্যায়ে কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের সঠিক তদারকিতে এ বছর জেলায় ৫৩৫৬০ হেক্টর জমির লক্ষমাত্রার বিপরিতে প্রায় ৫১২৭৫ হেক্টর জমিতে আলুর চাষ হয়েছে।
চলমান শীতে এ অঞ্চলের কৃষকরা তাদের জমির আলুর ক্ষেত নিয়ে সমস্যায় দিন পার করছে। তারা এখন চিন্তায় পড়ে মনে করছে না জানি এবারও লোকশান গুনতে হয়। তাদের চিন্তার মূল কারন এ বছর বেশি পরিমানে কীটনাশক স্প্রে করা লাগছে। যাতে করে উৎপাদন খরচ অনেক বেড়ে যাচ্ছে।
কয়েকদিন থেকে জেলার বিভিন্ন উপজেলা ঘুরে দেখা যায়, সকাল থেকে রাত পর্যন্ত কৃষকরা তাদের জমিতে কাজ করে যাচ্ছে। তবে সব এলাকার একই চিত্র দেখা যাচ্ছে, কৃষকরা তাদের আলু ক্ষেতে ছত্রাকনাশক স্প্রে করছে।
জেলায় যে সব এলাকায় তুলনামূলক ভাবে বেশি পরিমানে আলুর আবাদ হয় তার মধ্যে কাউনিয়া, পীরগাছা, মিঠাপুকুর, তারাগঞ্জ, বদররগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যাচ্ছে, কৃষকরা এই শীতে শত কষ্টে তাদের বেচেঁ থাকার স্বপ্ন তাদের জমির আলু ক্ষেতে নিবিড় পরিচর্চায় ব্যস্ত। কেউ নীড়ানি করছে কেউ পানি দিচ্ছে কেউ আবার স্প্রে করছে। তাদের সাথে কথা বলে জানা যায় বর্তমানে কমবেশি প্রতিদিনই ক্ষেতে ছত্রাকনাশক স্প্রে করা লাগছে। এতে করে আমাদের অতিরিক্ত মজুরি খরচ, ছত্রাকনাশক খরচ বেড়ে যাওয়ায় উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারা বলেন, এমনিতে আলুর ক্ষেতে বেশি কিটনাশক স্প্রে করা লাগে তার উপর এবারে আবহাওয়া অনকুলে না থাকায় কমবেশি প্রতিদিনই ছত্রাকনাশক স্প্রে করা লাগছে।
কাউনিয়া উপজেলার বুড়ির হাট এলাকার কৃষক সোহরাব মিয়ার সাথে তার ক্ষেতে কথা হলে তিনি বলেন, এ বছর আমি মোট ২৭ একর জমিতে আলুর চাষ করেছি। গতবছর আমি লোকশানে থাকলেও এ বছর নতুন স্বপ্ন নিয়ে আবাদ শুরু করেছি কিন্তু বর্তমানে আবহাওয়া অনুকুলে না থাকায় বেশি পরিমানে স্প্রে করা লাগছে। তাতে কওে খরচ বেশি হচ্ছে, এবং অধিক পরিমানে ছত্রাকনাশক স্প্রে করায় উৎপাদন কম হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। এদিকে মিঠাপুকুর উপজেলার জায়গীর হাটের কাশিনাতপুরের মকবুল, মেন্দির পুকুর এলাকার আব্দুল জলিল,ভবেশ, বলদিপুকুর এলাকার সালাইপুর গ্রামের আল আমিন, রশিদ মিয়া, গোলাপ মিয়া শুকরেরহাট এলাকার সুলতান, আজহারুল, আশরাফুলসহ অনেকের সাথে কথা বললে তারা জানান, এ বছর ও মনে হয় আমাদেও স্বপ্ন ধূলিষ্যত হতে যাচ্ছে। যে ভাবে আবহাওয়া বিভিন্নরুপে হানা দিচ্ছে তাতে করে ক্ষেত ঠিক রাখতে অতিরিক্ত পরিমানে স্প্রে করায় উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারা আরো বলেন, কৃষি অফিসের লোক বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পরামর্শ দিচ্ছে এবং সে অনুযায়ী তারা ক্ষেতের পরিচর্চা করছেন।
কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর এর উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) আফতাব হোসেন জানান, আমরা কৃষকদেরকে তাদের আলু ক্ষেতের ছত্রাকের আক্রমন দেখে ২ দিন পরপর ছত্রাকনাশক ( মেনকোজেব) স্প্রে, আর যদি ছত্রাকের আক্রমন কম হয় তাহলে ৫-৭ দিন পরপর করার পরামর্শ দিচ্ছি। বর্তমানে জেলার সব উপজেলায় এখন মাঠ পর্যায়ে সকল কর্মকর্তা কাজ করে যাচ্ছে। তারা কৃষকের দ্বারে দ্বারে গিয়ে বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় সঠিক পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে।

About Online Desk

The Daily Rangpur Chitra is the highest circulated regional daily newspaper of Rangpur Division, Bangladesh

Check Also

বাহের দ্যাশের লোকসংস্কৃতি পরিচিতি

রংপুরের জনগোষ্ঠী, ভাষা, ধর্ম, জীবন-জীবিকা, খাদ্যাভাস, বাসস্থান, পোষাক-পরিচ্ছদ : বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের একটি সুপ্রাচীন জনপদ রংপুর। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *