খালেদার গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় আটক ১৩

মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিতে কক্সবাজারে যাওয়া-আসার পথে ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় ১৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

বুধবার রাতে জেলা শহরসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেছে পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে আটকদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদ খান চৌধুরি ১৩ জনতে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আটকদের যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিতে গত শনিবার গাড়িবহর নিয়ে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা হয় বিএনপি চেয়ারপারসন। ফেনীর মহিপালের একটু আগে পৌঁছার পর খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা হয়। এ সময় বহরের নেতাকর্মীদের গাড়িসহ বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এতে সাংবাদিকসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।

ত্রাণ বিতরণ শেষে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর কক্সবাজার থেকে ঢাকায় ফেরার পথে মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী বাইপাস অংশের মহিপাল অতিক্রম করার পরপরই কয়েকটি পেট্রোল বোমা ছোড়া হয়। এ সময় বহরের পাশে থাকা যাত্রীশূন্য দুটি বাস পুড়ে যায়।

এ ঘটনায় ফেনী মডেল থানার এসআই নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে বুধবার ২৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৩৫-৪০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেন।

মামলায় জেলা কৃষকদল সভাপতি আলমগীর চৌধুরি, ছাত্রদল সভাপতি নঈম উল্লাহ চৌধুরি বরাত, সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন মামুনসহ ছাত্রদল-যুবদলের ২৯ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করা হয়েছে। গতকাল রাতে আটকরা এই মামলার আসামি কি না পুলিশ তা জানায়নি। এছাড়া হামলার ঘটনায় ছয়জনকে বুধবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Pin It on Pinterest