রাস্তার উপরেই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেন আলিয়া!

নাহ! ছোটবেলায় নয়। বরং নায়িকা হওয়ার পরেই এ কাজ করেছেন তিনি। করেছেন এক রকম বাধ্য হয়েই। এ কথা নিজেই স্বীকার করেছেন আলিয়া ভাট।
কী এমন হয়েছিল যে, নায়িকা রাস্তায় ‘প্রস্রাব’ করতে বাধ্য হন? সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে আলিয়া শেয়ার করেছেন সে ঘটনার কথা।
ওই সময় ইমতিয়াজ আলির পরিচালনায় ‘হাইওয়ে’ ছবির শুটিং করছিলেন আলিয়া। একটা ট্রাকে করে ঘুরে ঘুরে শুটিং করতে হয়েছিল। আগে থেকে লোকেশন তেমন ঠিক ছিল না। ঘুরতে ঘুরতে জায়গা আর আলো পছন্দ হলেই শুটিং শুরু করে দিতেন ইমতিয়াজ!

ওই সময় অনেক প্রত্যন্ত জায়গায় আলিয়াকে যেতে হয়েছিল ছবির তাগিদেই। সব জায়গায় প্রয়োজন মতো টয়লেট না পাওয়ায় রাস্তাতেই কাজ সারতে বাধ্য হয়েছিলেন নায়িকা!
আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, আলিয়ার এই মন্তব্য শুনে বলিউডের একটা বড় অংশ মনে করছে, কাজের প্রতি শ্রদ্ধা বোধহয় একেই বলে। নায়িকাসুলভ কোনো আচরণ না করে ভালো কাজের খাতিরে সমস্ত পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছিলেন মহেশ-কন্যা।

এছাড়াও ভারতে শৌচাগারের যে সমস্যা, আর তাতে নারীরা কতটা ভুক্তভোগী তা যেন আরো একবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন আলিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Pin It on Pinterest